কাশ্মীরকে আরেক ফিলিস্তিন বানাচ্ছে বিজেপি: সিপিআইএম

ভারতের বামপন্থী সংগঠন সিপিআই(এম) এর নেতা টিকে রঙ্গরাজন বলেছেন, বিশেষ মর্যাদা বা'তিলের মাধ্যমে কাশ্মীরে আরেক ফিলিস্তিন প্রতিষ্ঠা করছে বিজেপি। বা'তিলের দিনটিকে কালো দিন বলেও বর্ণনা করেন তিনি। ভারতীয় বার্তা সংস্থা এএনআইকে দেয়া সাক্ষাৎকারে এ কথা বলেন তিনি।

রঙ্গরাজন বলেন, ‘এটি একটি কালো দিন। ভারতীয় সংবিধান বিজেপি দ্বারা ধ'র্ষিত হলো। আপনারা জম্মু-কাশ্মীর ও লাদাখের মানুষের সাথে আলোচনাও করলেন না। সংসদ বা'তিল করে দিলেন। সেখানে নির্বাচন দিতে চান না। আরো ৩৫ হাজার ভারতীয় সে'না মোতায়েন করলেন। আপনারা আরেকটি ফিলিস্তিন তৈরি করছেন।’

এর আগে ভারতীয় সংবিধানের ৩৭০ ধারা, যা কাশ্মীরের ‘স্পেশাল স্ট্যাটাস’ বা বিশেষ মর্যাদা দেয় তা বিলোপ করার ঘো'ষণা দেয় বিজেপি সরকার। ভারতের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ সোমবার সংসদে বিরোধীদের তুমুল বা'ধা ও বাগ-বিতণ্ডার মধ্যে এই সিদ্ধা'ন্ত ঘো'ষণা করেন। বিশেষ মর্যাদার মাধ্যমে এতদিন কে'ন্দ্রীয় সরকারের নীতি বাস্তবায়নে কাশ্মীরের রাজ্য সভার অনুমোদন প্রয়োজন হতো। রাজ্যে জমি কেনা ও সরকারি চাকরি রাজ্যের বাইরের লোকদের জন্য নিষি'দ্ধ ছিলো।

এই মর্মে সরকারের পক্ষ থেকে একটি বিজ্ঞপ্তিও জা'রি করা হয়েছে, যাতে দেশটির রাষ্ট্রপতি রামনাথ গোভিন্দ স্বাক্ষরও করেছেন। এই সিদ্ধা'ন্ত ঘো'ষণার আগে সকালে প্রধানমন্ত্রীর বাসভবনে কে'ন্দ্রীয় মন্ত্রীসভার এক বৈঠকে বিস্তারিত আলোচনা হয়।

গৃহবন্দি করা হয়েছে জম্মু-কাশ্মীরের প্রাক্তন দুই মুখ্যমন্ত্রী ওমর আবদুল্লা এবং মেহবুবা মুফতিকে। এছাড়া কংগ্রেস নেতা উসমান মজিদ এবং সিপিএম বিধায়ক এমওয়াই তারিগামিকেও রাতে আ'টক করা হয়েছে বলে ভারতীয় সংবাদ মাধ্যমে বলা হয়েছে।
সেইস'ঙ্গে শ্রীনগর আর জম্মু অঞ্চলে ১৪৪ ধারা অনুযায়ী নি'ষেধাজ্ঞা জা'রি করা হয়েছে। একই স'ঙ্গে সব স্কুল-কলেজ অনির্দিষ্টকালের জন্য ব'ন্ধ রাখার নির্দে'শ দেওয়া হয়েছে।