চার ধ’র্ষকের ফাঁসি, রায় শুনে কান্নায় ভেঙে পড়লেন ধ’র্ষক

মানিকগঞ্জের সিংগাইর উপজেলায় স্কুলছাত্রীকে গণধ’র্ষণের পর হ’ত্যার দায়ে চারজনকে ফাঁসিতে ঝুলিয়ে মৃত্যুদণ্ড কার্যকরের আদেশ দিয়েছেন আদালত। মঙ্গলবার দুপুরে মানিকগঞ্জের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন টাইব্যুনালের বিচারক আলী হোসেন এ রায় দেন।

ফাঁসির দণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন এনামুল, রমজান, হাকিম ও ফাইজুল। রায় ঘোষণার সময় আসামি হাকিম আদালতে উপস্থিত ছিলেন। বাকিরা জামিন নিয়ে পলাতক। ফাঁসির রায় শুনে আদালতে কান্নায় ভেঙে পড়েন ধ’র্ষক হাকিম।

মামলার নথি থেকে জানা যায়, ২০১৮ সালের ১৬ জুলাই সিংগাইর উপজেলার ওয়াইজ নগর ব্র্যাক স্কুলের পঞ্চম শ্রেণির ছাত্রী রুমানা আক্তার স্কুল থেকে বাড়ি ফিরছিল। পথে স্কুলছাত্রীকে তুলে একটি পাটখেতে নিয়ে গণধ’র্ষণ করেন চারজন। এ সময় শিশুটি কান্না করলে গলায় পাট পেঁচিয়ে শ্বাসরোধে হ’ত্যা করেন তারা।

এ ঘটনায় স্কুলছাত্রীর চাচা কদম আলী বাদী হয়ে থানায় মামলা করেন। পরে চার ধ’র্ষকের বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগপত্র দেয় পুলিশ। মামলায় ১৫ জনের সাক্ষ্যগ্রহণ নেয়া হয়।

এই মামলায় রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী ছিলেন একেএম নুরুল হুদা এবং আসামিপক্ষে মামলা পরিচালনা করেছেন আইনজীবী নুরুজ্জামান।