ভিক্ষুকের ব্যাংক অ্যাকাউন্টে সাড়ে ৭ কোটি টাকা

১০ বছরের বেশি সময় লেবাননের সিডন শহরে ভিক্ষা করছেন ওয়াফা মোহাম্মদ আওয়াদ নামে লেবাবনের ওই নারী। তার ব্যাংক অ্যাকাউন্টে ১.২৫ বিলিয়ন লেবানিজ পাউন্ড। যা বাংলাদেশি মুদ্রায় ৭ কোটি ৬০ লাখের বেশি।

এই কোটিপতি নারী ভিক্ষুকের বিষয়টি দেশটির সামাজিক যোগাযোগ মধ্যম এবং গণমাধ্যমে ব্যা'পক সাড়া ফে'লেছে।

ওয়াফা মোহাম্মদ আওয়াদ জামাল ট্রাস্ট ব্যাংক থেকে তার এ্যাকাউন্ট সরিয়ে অন্য ব্যাংকে নিতে চাইলে বিষয়টি নজরে আসে। তার নামে ইস্যু হওয়া চেকটি গত ৩০শে সেপ্টেম্বর ভাইরাল হয়। যা প্রমাণ করে, ওই ভিক্ষুক একজন কোটিপতি।

ওয়াফা মোহাম্মাদ আওয়াদ ভিক্ষুক হিসেবেই পরিচিত। সিডন শহরের একটি হাসপাতালের সামনে তিনি প্রতিদিন ভিক্ষা করেন। জামাল ট্রাস্ট ব্যাংক ব'ন্ধ হওয়ার ঘো'ষণা আসার পরেই ওই নারী ধ'রা প'ড়ে যান।

একটি বিত'র্কিত সংগঠনকে টাকার দেওয়ার অ'ভিযোগে জামাল ট্রাস্ট ব্যাংকটির বি'রুদ্ধে তদন্ত শুরু করে মা'র্কিন যুক্তরাষ্ট্র। এরপর ব্যাংকটি ব'ন্ধ করার ঘো'ষণা দেওয়া হয়। তবে গ্রাহকদের সবার অর্থ নিরাপদে আছে বলে আশ্বস্ত করে লেবাননের কে'ন্দ্রীয় ব্যাংক।

বুধবার (২ অক্টোবর) বিকেল থেকে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে দুটি চেকের ছবি ব্যা'পক ভাইরাল হয়েছে। দেশটির কে'ন্দ্রীয় ব্যাংক থেকেই চেক দুটি ইস্যু করা হয়।

যার মধ্যে একটি চেক বৃ'দ্ধার নারী ওয়াফা মোহাম্মদ আওয়াদের। তিনি ব্যাংকে চেকটি আনতে গেলে পরিচয় গো'পনের বিষয়টি সামনে চলে আসে। ওই নারী চেক নেওয়ার সময় কে'ন্দ্রীয় ব্যাংকটির এক ক'র্মকর্তা তাকে চিনে ফে'লেন। এরপর তিনি ওয়াফার ছবি তুলে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে পোস্ট করেন।

দেশটির যে হাসপাতালের সামনে ওই বৃ'দ্ধা নারী ভিক্ষা ক'রতেন, সেই হাসপাতালের হানা নামের এক নার্স সংযুক্ত আরব আমিরাতের প্র'ভাবশালী দৈনিক গালফ নিউজকে বলেন, ওয়াফা মোহাম্মদ আওয়াদ ১০ বছর ধ'রে এখানে ভিক্ষা করেন। কিন্তু আম'রা তো তাকে বুঝতেই পারিনি। বৃ'দ্ধার নাম এখন সবার মুখে মুখে জড়িয়ে প'ড়েছে।