পীর হতে গিয়ে কবরে প্রবেশ করে মৃ’ত্যু’র হা’ত থে’কে বেঁচে ফি’রেছেন হবিগঞ্জের এক ব্যক্তি। ভিডিও

পীর হতে গিয়ে ক'বরে প্রবেশ করে মৃ’ত্যু’র হাত থে’কে বেঁ’চে ফি’রেছেন হবিগঞ্জের এক ব্যক্তি।

ঘ'টনাটি ঘটেছে হবিগঞ্জের মা’ধব’পুর উপজে'লার শাহজানপুর ইউনিয়নের নোয়াগাঁও গ্রামে। ওই গ্রামের ইউছুফ আলী দীর্ঘদিন যাবৎ এলাকায় কবি’রাজি করে আসছিলেন।

সাধারণ লোকজনকে পানি পড়া, তাবিজ, কবজ দিয়ে আসছিলেন।

হ'ঠাৎ এলাকায় প্র'চার করেন তিনি ক'বরের ভিতর যাবেন। ঘণ্’টার পর ঘ’ণ্টা ক’বরে থাকলেও তার কিছু হবে না। এই কথা শুনে এলাকার লোকজনের মধ্যে কৌতূহল সৃষ্টি হয়।

গত রোববার ইউছুফ আলী স্থানীয় চেয়ারম্যান তৌফিকুল আলম চৌধুরীর নিকট গিয়ে ক'বরের ভিতর প্রবেশের অনুমতি চাইলে চেয়ারম্যান তাকে কোনো অনুমতি দেননি। সেখান থেকে নিরাশ হয়ে তিনি গ্রামে ফি'রে এসে স্বজনদের ক'বর খুঁড়তে বলেন।

এই খবর এলাকায় লোকজনদের মধ্যে প্র'চার হলে শতাধিক উৎসুক জনতা তার এই ক'বরে প্রবেশ করার দৃ’শ্য দেখতে ভার’তীয় সী’মান্তবর্তী গ্রাম নোয়াগাঁও গ্রামের ভিড় করেন।

একপর্যায়ে ইউছুফ আলী মৃ’ত্যু’র ঝুঁকি নিয়ে তিনি ক'বরে প্রবেশ করেন। তারপর স্বজনরা ক'বরটির ওপরে প্রথমে বাঁশের চাটাই, তারপর পলিথিন ও সব শেষে মা’টিচা’পা দিয়ে দেন। তবে মাটির ওপর দিয়ে কয়েকটি ছোট ছোট ছিদ্র রাখা হয়।

মাটিচাপা দেয়ার কয়েক মিনিট পর ক'বরের ভিতর তার কোনো সাড়া শব্দ না পেয়ে চিন্তিত হয়ে প'ড়েন তার স্বজনরা। ছিদ্র দিয়ে দেখেন তিনি অজ্ঞান হয়ে গেছেন।

দ্রুত স্বজনরা মাটি ও পলিথিন, বাঁশের চাটাই সরিয়ে ক'বরের ভিতর তাকে অজ্ঞান অব'স্থায় দেখতে পান। স'ঙ্গে স'ঙ্গে স্বজনরা ও স্থানীয় লোকজন তাকে ক'বর থেকে টেনে উপরে তুলেন। এর পর থেকেই অসু'স্থ হয়ে ইউছুফ আলী বাড়িতে আছেন।

এই ঘ'টনাটি মঙ্গলবার রাতে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ছ'ড়িয়ে পড়লে মাধবপুর সর্বত্র আলোচনার ঝড় সৃষ্টি হয়।

স্থানীয় ব্যক্তি মাসুক খান জা'নান, নিজেকে পীর বা সাধক বোঝাতে ক'বর খুঁড়ে এর ভিতর শুয়ে পরেন ইউছুফ আলী। ক'বরের ভিতর ১০/১৫ মিনিট থাকার পর তার স্বজনরা ছিদ্র

দিয়ে দেখেন তার অবস্থা খারাপ। দ্রুত মাটি সরিয়ে তাকে অচেতন অব'স্থায় উ'দ্ধার করেন তারা। তিনি জনগণকে বোঝাতে চেয়েছিলেন তিনি বড় সাধক। এটি সফল হলে জনগণ তার প্রতি আস্তা তৈরি হতো। আর তার কবিরাজি ব্যবসা ভালো চলত। এটি একটি কুসংস্কার।

শাহজাহানপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান তৌফিকুল আলম চৌধুরীর স'ঙ্গে মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি জা'নান, ইউছুফ আলী তার কাছে ক'বরে এ প্রবেশ করার অ’মতি নিতে গেলে তিনি থা'নায় ও উপজে'লা নির্বাহী ক'র্মকর্তার নিকট থেকে অ’নুমতি নিতে প'রামর্শ দেন।

ভিডিও লিঙ্ক