ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন নির্বাচনে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছেন ৪ কাউন্সিলর প্রার্থী। দুটি সাধারণ ওয়ার্ড ও দুটি সংরক্ষিত ওয়ার্ডে প্রত্যাহারের শেষ দিনে একক প্রার্থী হওয়ায় রিটার্নিং অফিসার আলাদা আলাদা বিজ্ঞপ্তিতে তাদের বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত ঘো'ষণা করেন। দক্ষিণের রিটার্নিং অফিসারের কার্যালয়ের নির্বাচন ক'র্মকর্তারা এ তথ্য জা'নান।

বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত চার জনই আওয়ামী লীগ সমর্থিত কাউন্সিলর প্রার্থী। তারা হলেন- ২৫ নম্বর সাধারণ ওয়ার্ডের মো. আনোয়ার ইকবাল, ৪৩ নম্বর সাধারণ ওয়ার্ডের মো. আরিফ হোসেন (বর্তমান কাউন্সিলর) ও সংরক্ষিত আসন ৬ নম্বরে (১৬,১৭,১৮ সাধারণ ওয়ার্ডের সমন্বয়ে) নারগীস মাহতাব (বর্তমান কাউন্সিলর) এবং সংরক্ষিত ৮ নম্বর আসনের (২২, ২৩, ২৬) নিলুফার রহমান।

নারগীস মাহতাব বলেন, “আমা'র সংরক্ষিত আসনে আরও দুই জন প্রার্থী ছিল। তারা গতকাল প্রার্থিতা প্রত্যাহার করে নেন। এ জন্যে আমি বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছি। আমি রিটার্নিং ক'র্মকর্তার কাছ থেকে এ সংক্রা'ন্ত কাগজপত্র নিয়ে এসেছি।” কেন অন্যরা প্রত্যাহার করেছেন সে বিষয়ে জানা নেই বলে উল্লেখ করেন বর্তমান এ কাউন্সিলর।

নিলুফার রহমান বলেন, “আরও ৪ জন মনোনয়নপত্র নিলেও কেউ জমা দেন নি। আমিই একমাত্র প্রার্থী ছিলাম এ ওয়ার্ডে। সুতরাং বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হলাম। ” উত্তর সিটি করপোরেশন নির্বাচনে কেউ বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হন নি। ৩০ জানুয়ারি ভোট শেষে সবার স'ঙ্গে এ চার প্রার্থীরও ফলাফল গেজেটে প্র'কাশ করা হবে।